রোড এক্সিডেন্টে আক্রান্ত মুমূর্ষ সন্তান সম্ভবা ছাগীটির নব জীবন লাভ

0
1668

গর্ভে তার তিন মাসের সন্তান। অল্প কিছু দিনের মধ্যে তারা পৃথিবীর আলো-বাতাসে বুক ভবে শ্বাস নিয়ে তিড়িং বিড়িং করে ঘুরে বেড়াবে।এই আনন্দের ছবি চিন্তা করতে করতে ক্লান্ত শরীরে রাস্তার ধার দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল ছাগীটি।কিছুটা কষ্টও হচ্ছিল তার।তবুও সে মনের আনন্দে হেঁটে যাচ্ছিল । কিন্তু তার বিধি-বাম হঠাৎ করে রাস্তার বকাটে হিংস্র কুকুরটি তাকে তাড়া করে।

ছাগীটি টের পাওয়া মাত্র রুদ্ধ শ্বাসে জীবন বাঁচানোর তাগিদে দিগ-বিদিগ জ্ঞান শুন্য হয়ে দৌঁড়তে থাকে।দৌঁড়াতে দৌঁড়াতে  কুকুর থেকে কোন রকমে রক্ষা পেলেও ধাক্কা লেগে যাই চলন্ত একটি অটো বাইকে (চিএনজি) এর সাথে।পায়ে অনেকটূকু অংশ ছিঁড়ে যায়।তাছাড়া আরো শরীরের আরো বিভিন্ন জায়গা ক্ষত-বিক্ষত হয়।ঝড় ঝড় করে রক্ত পড়তে থাকে।সে এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য।হতভম্ব চালক অত্যন্ত সহৃদয়তার সাথে প্রাণিটিকে কোলে তুলে নিয়ে আরো কয়েকজন সহ রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা ভেটেরিনারি হাসপাতালে নিয়ে আসে।

আনার সাথে সাথে ভেটেরিনারি সার্জন, কম্পাউন্ডার,ড্রেসার ,অফিস সহায়ক সহ পুরো “ভেটেরিনারি টিম” মুমূর্ষ গর্ভবতী ছাগীটির জীবন রক্ষার কাজে ঝাঁপিয়ে পড়ে।সাথে সহযোগিতা করেছেন রোগীর সাথে আসা লোকজন।

প্রায় এক ঘন্টা ধরে চলে অপারেশন কার্যক্রম (ভিডিও) প্রথমে ক্ষত স্থানগুলো ভালো করে ড্রেসিং করা হয়।পরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া গেল পায়ের অথবা শরীরের অন্য কোন স্থানে কোন হাড় ভাঙ্গানি।এই বিষয়টি পুরো টিমকেই একটু স্বস্তি দিল।এরপর প্রানিটির পা অবশ (Local Anaesthesia) করে ক্ষত স্থান সেলাই করা সহ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।

এর মাঝেই একবার আক্রান্ত প্রাণীর শরীরে প্রচণ্ড কাঁপুনি সহ খিঁচুনি শুরু হয়ে যায়।সম্ভবত মাথাই আঘাত পাওয়ার কারনে এ ঘটনা ঘটেছে।অনেক কষ্টে বিভিন্ন ডাক্তারী বিদ্যা প্রয়োগ করে এই অবস্থাটাও কাটিয়ে ওটা সম্ভব হল।প্রায় এক ঘন্টা পর ছাগীটিকে অপারেশন টেবিল থেকে নীচে  নামানো হল।আনন্দের বিষয় হল সে নামা মাত্রই হাঁটা শুরু করল । দেখে মনটা ভরে গেল।নিশ্চিন্ত হওয়া গেল এ যাত্রাই সে বেঁচে গেল, সাথে সাথে বেঁচে গেল তার অনাগত বাচ্চাগুলোও।

পরবর্তীতে ধনুষ্ঠংকার রোধী টীকা প্রয়োগ সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করে মালিকসহ ছাগীটি কে বিদায় দেওয়া হল।সম্পূর্ন বিনামূল্যে এমন সেবা পেয়ে সবাই খুশি।আমরাও খুশি,আমাদের হাত দিয়ে সৃষ্টিকর্তা বাচ্চাসহ এই প্রাণিটিকে রক্ষা করেছেন বলে।

সবাই সৃষ্টি কর্তার কাছে প্রার্থনা করবেন যেন তার নিরাপদ প্রশব নিশ্চিন্তে হয়।

হয়।অপারেশনের ভিডিওটি এই লিংকে ক্লিক করলে দেখতে পারবেন আগ্রহীরা দেখে নিতে পারেন

ডাঃসুচয়ন চৌধুরী
উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা (অঃদাঃ)
রাঙ্গামাটি সদর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here