রাঙ্গামাটিতে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ, ২০১৮ উদযাপন

0
903

রাঙ্গামাটি জেলা এবং সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের উদ্যেগে নানা কার্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয় প্রাণিসম্পদ সপ্তাহ,২০১৮।রাঙ্গামাটি জেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাথে স্থানীয় খামারী,খাদ্য বিক্রেতা,ঔষধ বিক্রয় প্রতিষ্ঠান এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সতেজফুর্ত অংশগ্রহনে সমগ্র আয়োজন প্রানবন্ত হয়ে উঠে।সমগ্র আয়োজনকে প্রানবন্ত করে রেখেছিল সর্বস্তরের খামারীদের প্রানবন্ত উপস্থিতি।

“প্রাণীসম্পদ সেবা সপ্তাহ,২০১৮” উপলক্ষে রাঙ্গামামাটী সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আলোকসজ্জা (চিত্র-১)
“প্রাণীসম্পদ সেবা সপ্তাহ,২০১৮” উপলক্ষে রাঙ্গামামাটী সদর উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের আলোকসজ্জা

 

সপ্তাহের শুরুতে সাজ-সাজ রবে শুরু হয় বর্নীল আলোক সজ্জা।রং বেরঙ এর জোনাকী বতিসহ হরেক রকমের আলোক সজ্জায় সজ্জিত হয় রাঙামাটি প্রাণিসম্পদ বিভাগের প্রতিটি অফিস।সন্ধ্যা নামলেই যা পথচারীকে মূহুর্তের জন্য হলেও থামিয়ে দেয়।

কার্যক্রমের সূচনা হয় র‍্যালীর মাধ্যমে।রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব বৃষ কেতু চাকমা এবং সম্মানিত সদস্য সুবীর চাকমা এই র‍্যালীর নেতৃত্ব দেন।র‍্যালীতে আরো উপস্থিত ছিলেন ডিলার,খামারীসহ প্রাণিসম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ।

র‍্যালী শেষে পায়রা উড়িয়ে সম্মানিত চেয়ারম্যান মহোদয় রাঙ্গামাটি জেলার “প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ-২০১৮” এর শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

র‍্যালী পরবর্তী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি রাংগামাটি জেলা পরিষদের সম্মানিত চেয়ারম্যান জনাব বৃষ কেতু চাকমা মহোদয় রাঙ্গামাটি জেলার প্রাণিসম্পদের উন্নয়নে সকলকে এক যোগে কাজ করার আহ্ববান জানান।
অনুষ্ঠানে খামারীদের মাঝে বিনামূল্যে স্প্রে মেশীন বিতরন করা হয়

“প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ২০১৮” উপলক্ষে খামারীদের মাঝে বিনামূল্যে স্প্রে মেশিন বিতরন

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহের অন্যতম আকর্ষন ছিল প্রাণিসম্পদ মেলা।আলোচনা সভা শেষে উপস্থিত অতিথিবৃন্দ মেলার সকল স্টল ঘুরে দেখেন।মেলায় আগত বাজিগর পাখি,ঘুঘু,টার্কি,উন্নত জাতের গরু মেলার দর্শকদের আকর্ষন করে বেশি।

এই মহা সমারোহের বিশাল অংশ জুড়ে ছিল “স্কুল ফিডিং” ।এই কাজের অংশ হিসেব তিনটী স্কুলে কার্যক্রম পরিচালিত হয় ।

রাঙামাটি প্রতিবন্ধী স্কুলে আয়োজিত “স্কুল ফিডিং” অনুষ্ঠানে উপস্থিত রাঙ্গামাটি সদর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাঃসুমনী আক্তার ছাত্রছাত্রীদের হাতে ডিম তুলে দিয়ে এ কার্যক্রম সূচনা করেন।অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রাণিসম্পদ দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ আলোচনা মাধ্যমে ডিম ,দুধ ও মাংসের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন।

স্কুল ফিডিং এর অন্য একটি ইভেন্ট পরিচালির হয় “রাঙ্গামাটি শিশু নিকেতনে”।ঐ সময় বিভিন্ন কুইজের মাধ্যমে উপস্থিত ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ডিম,দুধ ও মাংসের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরা হয়। সবশেষে ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে তুলে দেওয়া হয় ডিম।

তৃতীয় স্কুল ফিডিং কার্যক্রম পরিচালিত হয়,”ঝগড়া বিল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে” ।এই সময় ছাত্রছাত্রীদের মাঝে খেলার ছলে প্রানিজ আমিষের গুরুত্ব তুলে ধরা হয়।আর ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে ডিম বিতরনের মাধ্যমে এই কার্যক্রম সমাপ্ত হয়।

মাঠ পর্যায়ের খামারীদের এ কার্যক্রমে সম্পৃক্ত করতে মাঠ পর্যায়ে দুইটি ইউনিয়নে “বিনামূল্যে প্রাণিসম্পদ স্বাস্থ্যসেবা” প্রদান করা হয়।

তান্মধ্যে একটি হল সাপছড়ি এলাকার প্রাণিস্বাস্থ্য সেবা উপকেন্দ্রে।স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান,হেডম্যান সহ অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তি এবং খামারীদের উপস্থিতি উক্ত অনুষ্ঠানকে সফল করে তুলে।

তাছাড়া জীবতলী চেয়াম্যান পাড়ায় অন্য আরেকটি সেবা কেন্দ্র পরিচালনা করে হয়।সেখানেও খামারীদের পশু পাখিকে বিনামূল্যে ভেক্সিন,কৃমিনাশক সহ অন্যান প্রয়োজনীয় সামগ্রী প্রদান করা হয়।

এরকম আনন্দ ঘন বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় রাঙ্গামাটি জেলার জেলা এবং উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের প্রাণীসম্পদ বিভাগের “প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ-২০১৮।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here