পশুর কোরারেন্টাইন এবং আইসোলেশন কি এবং কেন?

    0
    863

    খোলা বাজার থেকে গরু সংগ্রহ করার পর সেগুলো সপ্তাহ দুইয়েক অন্য গরু থেকে আলাদা রাখা বড্ড প্রয়োজন।

    কারন গরু গুলো যদি কোন রোগের জীবানু বহন করে অথবা কোন ধরনের সমস্যা থাকে তাহলে তার লক্ষন এই সময়ের মধ্যে দেখা যায়।

    সেই ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে মূল খামারে অন্যান্য পশুর সাথে রাখা যায়।

    সংক্ষেপে এটিই হল কোয়ারেন্টাইন

    প্রশ্ন হল কোয়ারেন্টাইন না করলে কি সমস্যা?

    অনেক রোগ আছে যা ছোঁয়াছে।স্পর্শ বা বিভিন্ন মাধ্যমে অসুস্থ পশু থেকে সুস্থ পশুতে যেতে পারে।

    কোন রোগের জীবানু শরীরে প্রবেশের সাথে সাথে ঐ পশু অসুস্থ হয় না।একটি নির্দিষ্ট সময় পরে রোগের লক্ষন দেখা দেয়।এই নির্দিষ্ট সময়টিকে ঐ রোগের সুপ্তাবস্থা(Incubation period) বলে।

    নতুন পশুকে অন্যান্য সুস্থ পশুর সাথে রাখার পূর্বে আলাদা ভাবে রেখে এই সময়টুকু নজরদারি করতে হয়।যদি এই সময়ে সে অসুস্থ না হয় তাহলে সকলের সাথে মিশতে পারবে আর যদি লক্ষন দেখা দেয় তা হলে সকল পশু থেকে আলাদা করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে।এই বিষয়টিকে বলে সঙ্গ নিরোধ (islolation)।যেটি নতুন পুরাতন সকল পশুর জন্য প্রযোজ্য।

    তাই সামনের কোরবানীকে সমানে রেখে যারা পশু ক্রয় করছেন তারা অবশ্যই কোরেন্টাইন এবং আইসোলেশন করুন।

    আপনার খামার নিরাপদ হবে এবং অর্থনৈতিক ভাবে আপনি হবেন লাভবান।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here